আদমজি ইপিজেড এলাকায় শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

14

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সিদ্ধিরগঞ্জে আদমজী ইপিজেডের সামনে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকরা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে। এসময় শ্রমিকদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। শনিবার (৯ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-শিমরাইল সড়কে শ্রমিকদের বিক্ষোভ শুরু হয়। সকাল থেকেই যানচলাচল বন্ধ হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ।

পুলিশ শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ তুলে নিতে বললে শ্রমিকদের সাথে সংঘর্ষ শুরু। শ্রমিকরা সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে।

শ্রমিকরা জানায়, আদমজী ইপিজেডের কুনতং এপারেলস লিমিটেড (ফ্যাশন সিটি) ১০ আগষ্ট হঠাৎ দুই দিনের ছুটি ঘোষণা দিয়ে কারখানা বন্ধ করে দেয়। সেই বন্ধ বাড়াতে বাড়াতে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

তবে বন্ধ হওয়ার পরেও শ্রমিকদের তিন-চার হাজার টাকা করে বেতন পরিশোধ করে আসছিলো মালিক পক্ষ। এরই ধারাবাহিকতায় তাদের বেতন দেওয়ার কথা থাকলেও চার মাস বেতন দেয়া হয় নি। গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ আগামী ২০ জানুয়ারি বেতন দেওয়ার ঘোষণা দেয়।

যার কারণে প্রায় এক হাজার শ্রমিক শনিবার সকাল ৮টা থেকে আদমজী ইপিজেডের প্রধান কার্যালয়ে অবস্থান নেন। সেখানে তাদের সাথে আনসার ও ইপিজেডের নিরাপত্তা কর্মীরা বাজে ব্যবহার করে বলে অভিযোগ করেন তারা।

রাস্তা অবরোধের খবর পেয়ে ইন্ডাষ্ট্রিয়াল পুলিশ-৪ এর সিনিয়র এএসপি আইনুল হক, নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক সার্কেল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের সাথে আলোচনা করেও আন্দোলন থামাতে ব্যর্থ হন।

ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৪ এর সিনিয়র এএসপি আইনুল হক জানান, আগামী ২০ তারিখে মালিকপক্ষ থেকে শ্রমিকরদের বকেয়া বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিলেও তারা আবারও তাদের আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করতে গিয়ে আনসারদের সাথে সংঘর্ষে ২০ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, পুলিশ জলকামান ও টিয়ারগ্যাস মেরে শ্রমিকদের আন্দোলন ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে। আন্দোলনকারীরা একটি প্রাইভেটকার ও একটি কনটেইনার ভাঙচুর করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...