সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

আনসার ভিডিপি সদস্যদের সহযোগীতার আশ্বাস দিলেন সদর ইউএনও

ফতুল্লা সংবাদদাতা: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরিফা জহুরা বলেছেন, আমরা কর্মকর্তারা যখন বদলী হই, তখন অনেকেই অনেক ভালো ভালো কথা বলেন। তাদের ওই সকল কথা শুনলেই বুঝাযায় কোনটা তাদের হৃদয়ের কথা, আর কোনটা তারা খুশি করার জন্য বলছেন। আমি এখানে বসে সেই বিষয়টি অনুধাবন করেছি। শুধু খুশি করার জন্যই নয়, এখানে যারা অজিত বাবুকে নিয়ে ভালো ভালো কথা বলেছেন, প্রত্যেকে হৃদয় দিয়ে উপলব্দি করে কথাগুলো বলেছেন। বরং আমার মনে হয়েছে অনেকে তাদের হৃদয়ে বলার আরও যে আকাঙ্খা ছিলো, হয়তোবা সেগুলো বলে উঠতে পারেন নি।

শনিবার (০১ মে) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) অজিত কুমার দাসের বদলী জনিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নবাগত ইউএনও এসব কথা বলেন। উপজেলা আনসার কোম্পানী কমান্ডার, সহকারী কোম্পানী কমান্ডার ও ইউনিয়ন আনসার কমান্ডার এবং ইউনিয়ন দলপতি ও দলনেত্রীবৃন্দরা এ সংবর্ধনার আয়োজন করেন। লকডাউনের কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অত্যান্ত স্বল্পপরিসরে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সদর ইউএনও বলেন, ওনি (অজিত দাস) মাত্র এক বছরের কিছু বেশি সময় ধরে এখানে আছেন। এর মধ্যে অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ন কাজ ওনি সম্পন্ন করেছেন। ওনি আপনাদের এমনই এক অভিভাবক ছিলেন যিনি চলে যাচ্ছেন, কিন্তু আপনাদের যেন আমি ¯েœহের চোঁখে দেখি, আপনাদের প্রতি যেন আমার সুদৃষ্টি থাকে, সে বিষয়টি ওনি বার বার বলে গেছেন। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই যেভাবে আপনারা অতিতে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতা পেয়েছেন, ভালোবাসা পেয়েছেন, এ ধারা অব্যাহত থাকবে। উপজেলা প্রশাসনের তরফ থেকে, উপজেলা ইউএনও’র তরফ থেকে যতটুকু সহযোগীতা প্রয়োজন, সে সব ধরনের সহযোগীতাই আপনারা আমার কাছ থেকে পাবেন।

এর আগে, অজিত দাসের বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কান্নায় ভেঙে পড়েন সহকর্মীরা। তারা যেন কোন কিছুতেই এ বদলী মেনে নিতে পারছিলেন না। সকলের বিমর্ষ ও মনমরা ভাব আর তাদের করুন চাহনিতে তাই ফোটে উঠেছে বার বার। এ যেন এক আবেগঘন ও হৃদয় বিদারিক পরিবেশের সৃষ্টি। মাত্র এক বছরেরও কিছুদিন সময় ধরে কাজ করে সহকর্মীসহ সকলের মন জয় করে নিয়েছেন অজিত দাস। আনসার ভিডিপি সদস্য থেকে শুরু করে অফিসার, সকলেই তার কাছে ছিল সমান। সবাইকে তিনি সমান ভালোবাসতেন। গত লকডাউন থেকে শুরু আজ পর্যন্ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে তিনি সকলের প্রিয় পাত্রে পরিনত হয়েছেন। আর তাইতো সহকর্মীদের চোঁখের জল দেখে নিজের চোঁখের জলও ধরে রাখতে পারেন নি তিনি। বক্তব্য দিতে গিয়ে এবং অনুষ্ঠান শেষে সহকর্মীদের জড়িয়ে ধরে কেঁদেছেন।

বক্তব্য শেষে সদ্য বিদায়ী সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) অজিত কুমার দাসের হাতে সম্মাননা ক্রেষ্ট তুলে দেন প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দরা। পরে সহকর্মীরাও তার হাতে উপহার তুলে দেন। এর আগে সহকর্মীরা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান করেন।

সদর উপজেলা আনসার কোম্পানী কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি প্রশিক্ষক খায়রুল আলম, প্রশিক্ষিকা নাজিরা পারভীন, উপজেলা আনসার কোম্পানী কমান্ডার জাহাঙ্গীর আলম, ১৮নং ওয়ার্ড দলপতি মো: মুসাউল্লাহ্, ৫নং ওয়ার্ড দলনেত্রী নাসরিন আক্তার সীমা প্রমূখ।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD