বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৩:৩০ অপরাহ্ন

আমাদের বিজয় বারবার ছিনতাই হয়েছে-বিপ্লব বড়ুয়া

নারায়ণগঞ্জের খবরঃ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া বলেছেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতের পর বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মনে হয়েছিলো আমরা পরাজিত হয়েছি। কিন্তু তা নয় আমরা আমাদের সফলতা পুণনির্মাণ করতে শিখেছি। বাঙালি জাতি বারবার বিজয় অজর্ন করেছে, আমাদের সেই বিজয় বারবার ছিনতাই হয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে তাতে মনে হচ্ছে আমরা অনেক সময় অতীতে নষ্ট করেছি কিন্তু সুন্দর আগামীর দিনের দিকেই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে ৩ বছর ৭ মাস ক্ষমতায় থাকার মধ্যেই তিনি আমাদের এই বাংলাদেশকে সুন্দর একটি কাঠামোর উপর দাঁড় করিয়েছিলেন।তাকে স্বপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার পরাজিত শত্রুরা একত্রিত হবার চেষ্টা করেছে। আমাদের একুশ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। বাঙ্গালী জাতি ১৯৯৬ সালে জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা কে ক্ষমতায় এনে সেই পরাজিত শক্তিদের অর্জন নৎসাত করেছে। তিনি বলের জাতির পিতাকে হত্যার পর আমাদের ইতিহাসকে বিকৃত করার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু আজকের প্রজন্ম সেই বিকৃত ইতিহাসকে প্রত্যাখান করেছে। তিনি বলেন আমাদের বর্তমান প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সত্যিকারের ইতিহাস শিক্ষা দিতে হবে। যাতে আর কোন পরাজিত শক্তি এদেশে স্বাধীনতাকে বিপন্ন করতে না পারে।

বুধবার (৭ আগস্ট) বিকেলে নগরীর পশ্চিম দেওভোগ ভূঁইয়ারবাগ বিদ্যানিকেতম হাইস্কুলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিপ্লব বড়–য়া বলেন, বঙ্গবন্ধু শিশুদের ভালোবাসতেন। শিশুদের নিরাপত্তার জন্য আইন তিনিই করেছিলেন। রাষ্ট্র পরিচালনার এমন কোন জায়গা নেই যেখানে বঙ্গবন্ধু কাজ করেননি। কিন্তু সেগুলো সম্পন্ন করতে আমাদের ৩০ বছর পর শুরু করতে হয়েছে। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যা কিছুই করা হচ্ছে তা সব কিছু শিশুদের ভবিষ্যত নিশ্চিত করার জন্য। আমাদের ইতিহাসের সঠিক তথ্য আমাদের নতুন প্রজন্মকে জানাতে হবে।

বিদ্যানিকেতন হাইস্কুলের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও দৈনিক সংবাদের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কাশেম হুমায়ূনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড.সেলিম মাহমুদ, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু উপস্থিত ছিলেন।

বিদ্যানিকেতন ট্রাষ্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের (এনইউজে) সভাপতি আবদুস সালামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে এনইউজের সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন পন্টি, স্কুলের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন সোহেল, প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার সাহা। এর আগে অতিথিরা বিদ্যানিকেতনে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব পরিদর্শন করেন এবং শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় করেন এবং বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরন করেন। অনুষ্ঠানে আবৃত্তি, সংগীতানুষ্ঠান ও প্রামাণ্য চলচিত্র প্রদর্শনী হয়। অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন ভবানী শংকর রায় এবং ডলি বণিক।
আবদুস সালাম

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD