সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৬:২১ অপরাহ্ন

আমাদের বিরুদ্ধে বাইরে অপপ্রচার চালাচ্ছে-প্রধানমন্ত্রী

নারায়ণগঞ্জের খবর ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব ধরনের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ী সম্প্রদায়কে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এখন সরকারের বিরুদ্ধে যে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তা মূলত দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যেরই ক্ষতি করছে। বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে তার কার্যালয়ে যান বাংলাদেশ তৈরি পোশাক রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) নেতারা। এ সময় তিনি তাদের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, কিছু লোক আছে অনবরত আমাদের বিরুদ্ধে বাইরে অপপ্রচার চালাচ্ছে, যারা আমাকে রাজনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়। এটা আপনাদের (ব্যবসায়ী নেতারা) চিহ্নিত করতে হবে। দেশের উন্নয়নে তৈরি পোশাক শিল্পের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পণ্য রফতানির জন্য এর আকর্ষণ বাড়াতে হলে আপনাদের পণ্যের বহুমুখীকরণের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।

ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এবং হাইকমিশনারদের অংশগ্রহণে গত জুলাইয়ে লন্ডনে অনুষ্ঠিত দূত সম্মেলনে দেওয়া নিজের বক্তৃতার প্রসঙ্গ টেনে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশি পণ্যের জন্য তাদের নতুন বাজার খুঁজে বের করতে বলেছি। ব্রেক্সিট ইস্যু বাংলাদেশের রফতানি বাণিজ্যে প্রভাব ফেলবে না, এমন অভিমত ব্যক্ত করে সরকারপ্রধান বলেন, বিশেষ করে ইউরোপীয় দেশগুলোর সঙ্গে সম্পাদিত রফতানি চুক্তির কারণে ব্রেক্সিট কোনোভাবেই বাংলাদেশের ব্যবসা, বিশেষ করে রফতানিকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে না। এসব চুক্তির সঠিক বাস্তবায়নই চলবে। বিজিএমইএ’র সভাপতি রুবানা হকের নেতৃত্বে ব্যবসায়ী নেতারা তাদের বিভিন্ন দাবিদাওয়া পেশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা তৈরি পোশাক খাতের উন্নয়নে সম্ভব সব ধরনের সহযোগিতা দিচ্ছি। কেননা, এটি আমাদের জন্য বিশাল কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিয়েছে, বিশেষ করে নারীদের জন্য। একই সঙ্গে এই খাত দেশের উন্নয়নেও ভূমিকা রাখছে।’
সরকারপ্রধান বলেন, দেশের ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজ শিল্পের সমস্যা সমাধানেও আমরা প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিচ্ছি। তিনি বলেন, আমরা দেশকে সব ক্ষেত্রেই এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আর সেজন্য আমাদের কৃষি ও শিল্পায়ন—দুটি ক্ষেত্রকেই সমান গুরুত্ব দিতে হবে। এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই দেশে শিল্প স্থাপনের গোড়াপত্তন করেন। প্রধানমন্ত্রী এ সময় বিজিএমইএ নেতাদের নির্দিষ্ট শিল্পাঞ্চলেই শিল্প-কারখানা গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাত বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, সাবেক বিজিএমইএ সভাপতি আনিসুর রহমান সিনহা, আনোয়ার-উল আলম চৌধুরী পারভেজ, সিদ্দিকুর রহমান, প্রথম জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মোহাম্মাদ আব্দুস সালাম এবং জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ফয়সল সামাদ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এবং প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ সময় উপস্থিত ছিলেন। বাসস

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD