আলোচনায় রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদল

17

নারায়ণগঞ্জের খবরঃ এবার আলোচনায় রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সদ্যঘোষিত ২১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি। এই কমিটিতে স্থান করে নিয়েছেন ছাত্রলীগের পদধারী এক নেতা। এছাড়াও কমিটিতে পদ পেয়েছেন বিবাহিত ও অছাত্ররা। এসব বিষয়কে কেন্দ্র করেই কমিটি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে। এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ১৩ জন নেতা গণপদত্যাগ করেছেন। কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে আর্থিক লেনদেনের অভিযোগও করেছেন তারা।

সদ্য পদত্যাগ করা উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক নাহিদ হাসান ভুইয়া জানান, গত ২৫ মার্চ গঠন হওয়া উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটতে বিবাহিত সুলতান মাহমুদকে আহ্বায়ক ও এবং অছাত্র মাসুদুর রহমান মাসুদকে যুগ্ম-আহ্বায়ক করা হয়েছে। ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, মহানগড় উত্তর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক আরিফ বিল্লাহ আলিফকে যুগ্ম-আহ্বায়ক করা হয়েছে এই কমিটিতে। এ কারণে আমরা উপজেলা ছাত্রদলের পদ পাওয়া ১৩ জন যুগ্ম-আহ্বায়ক ও সদস্য গণপদত্যাগ করেছি।

এই ছাত্রদল নেতার অভিযোগ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মসিউর রহমান রনী ও সাধারণ সম্পাদক খাইরুল আলম সজিব ৩০ লাখ টাকা লেনদেন করে এই কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল মামুন বলেন, যে কমিটি হয়েছে তা সম্পূর্ণ কেন্দ্রের নির্দেশে। এর দায়ভার জেলা ছাত্রদলের নয়।

নিউজটি শেয়ার করুন...