ইসদাইরে আবারও খুন

362

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  ফতুল্লার ইসদাইর এলাকায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে ধ্রুব চন্দ্র দাস (১৫) নামের এক কিশোর নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় ৪ কিশোরকে আটক করেছে ফতুল্লা থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৭ মে) রাত সাড়ে আটটার দিকে ওই কিশোরকে ছুরিকাঘাত করেন দুর্বৃত্তরা। এরপর গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সোয়া দশটার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ধ্রুব চন্দ্র দাসের বাবা মাধব চন্দ্র দাস জানান, ধ্রুব রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। বাসার সামনে দুর্বৃত্তরা তার পেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। পরে তার চিৎকারে আমরা রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দ্রুব, ইয়াসিন,পিয়াস, রিপন, অন্তর সহ কয়েকজন ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্র। তারা এক সাথে চলা ফেরা করেন। স্কুল ছুটির পর প্রত্যেকেই স্কুলে সামনে চায়ের দোকানে গভীর রাত পর্যন্ত আড্ডা দেয়। এতে কোন বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়।

তাদের মধ্যে ইয়াসিন জানান, পিয়াস তাকেসহ কয়েকজন বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে দ্রুবকে ডেকে স্কুলের কাছে অন্ধকারে নিয়ে যায়। এরপর দ্রুবকে পিয়াস ছুরিকাঘাত করে অন্যরা মারধর করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি শেখ রিজাউল হক দিপু জানান, স্থানীয় লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যায়। সেখানে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃতঘোষনা করেন। এঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারজনকে আটক করা হয়েছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে রহস্য উদঘাটন করতে পারবো এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন...