বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫৯ পূর্বাহ্ন

কুতুবপুরে নৌকা প্রত্যাশী আঃ খালেক

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আসন্ন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে আওয়ামী লীগের সমথর্ন নিয়ে নিবার্চনে অংশ নিতে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের তৃনমূল থেকে উঠে আসা আঃ খালেক মুন্সী।

তিনি বিগত ৩টি ইউনিয়ন পরিষদের নিবার্চনেও চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন।  কিন্তু দল তাকে মনোনয়ন না দিয়ে দলের সিনিয়র নেতাদের মনোনয়ন প্রদান করেন।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের তৃণমূল কর্মীরা চাচ্ছেন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের নিবার্চনে দলের ত্যাগী নেতাকে আওয়ামী লীগ মনোনীত করুক।

সেই লক্ষ্যেই গত ৫ অক্টোবর মঙ্গলবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে কুতুবপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে দলীয় মনোনয়নের সংগ্রহ করেছেন কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আঃ খালেক মুন্সী।

মনোনয়নপত্রটি মোঃ আব্দুল খালেক মুন্সির পক্ষে সংগ্রহ করেন কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ নজরুল ইসলাম।

মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, মোঃ আব্দুল খালেক মুন্সি ভাই ১৯৮৬-৮৮ ইং সালে ডেমরা থানা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন, ১৯৯২ ইং সালে নারায়ণগঞ্জ কোর্টে বিএনপি’র ক্যাডারদের গুলিতে গুলিবিদ্ধ হন, ১৯৯৩ ইং সালে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন, ১৯৯৪- ১৯৯৬ ইং সালে বিএনপির শাসনামলে দীর্ঘ ২৬ মাস কারাগারে ছিলেন, এরপর নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব একেএম শামীম ওসমানের হাত ধরে ২০০১ সাল থেকে এখন পর্যন্ত কুতুবপুর তৃণমূল আওয়ামী যুবলীগ এর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন, ২০০১-২০০৬ ইং সাল পর্যন্ত বিএনপি’র ক্যাডার বাহিনী তার নিজস্ব বাড়িতে বেশ কয়েকবার অভিযান চালিয়ে তার পরিবারের উপরও নির্যাতন করে। ২০০৭ সালে কেয়ারটেকার গভমেন্ট এর আমলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ গুলিস্তান পার্টি অফিসের সামনে থেকে গ্রেফতার হয়। আমরা দৃঢ় আশাবাদী নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব একেএম শামীম ওসমান এমপি মোঃ আব্দুল খালেক মুন্সি ভাইয়ের মতো তৃণমূলের এমন একজন ত্যাগী নেতা কে মূল্যায়ন করে আসন্ন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে নৌকার মাঝি করে মনোনয়ন দিবে।

উল্লেখ্য, করোনা দুর্যোগ কিংবা জলাবদ্ধতার সময় এমপি শামীম ওসমানের সহধর্মিনী নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি ভাবির পরামর্শ অনুযায়ী কুতুবপুরের জনগণের মাঝে সার্বিক সহযোগিতায় সর্ব সময় পাশে ছিলেন। আমি শতভাগ বিশ্বাসী মোঃ আব্দুল খালেক মুন্সি ভাই কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পেলে কুতুবপুর ইউনিয়নের অবঞ্চিত আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিনের বিএনপি’র শাসন শোষণ থেকে মুক্তি পাবে এবং নৌকাকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করবে ইনশাল্লাহ। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD