জেলা জুড়ে কিশোর গ্যাং সক্রিয়

193

নারায়ণগঞ্জের খবর: জেলাজুড়ে কিশোর অপরাধীরা তৎপর হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পরিচয়ে এবং আশ্রয় প্রশ্রয়ে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে উঠতি বয়সি এসব অপরাধীরা। প্রায় সময় এসব অপরাধীরা দ্বদ্ধ-সংঘাতে জড়িয়ে পরছে। অনেক সময় কিশোর অপরাধীদের হাতে প্রতিপক্ষ কিংবা নিরিহ মানুষ নির্যাতিত-নিগৃহীত হচ্ছে। আবার প্রাণ হারিয়েছে অনেকে । আর এসব কারণেই নারায়ণগঞ্জে আতঙ্কের অপর নাম কিশোর গ্যাং। সর্বশেষ কিশোর অপরাধীদের বলি হয়েছে বন্দরের কদমরসুল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র মিহাদ (১৮),বন্দরের বিএম ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র জিসান (১৫)।

সম্প্রতি সময়ে জেলাজুড়ে বেশ কিছু ঘটনায় এসব কিশোর অপরাধীদের লাগাম টানা সময়ের দাবীতে পরিনত হয়েছে বলে মনে করছেন সচেতন মহল। এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জরুরী হস্তক্ষেপ দাবি করেছে তারা।

জানা গেছে, সাম্প্রতিক সময়ে নারায়ণগঞ্জে কিশোরদের মাঝে গ্যাং কালচার বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কোনো নাম দিয়ে গ্যাং পরিচালনা না করলেও তারা সংঘবদ্ধভাবে সক্রিয়। ‘পার্টি’ করা, হর্ন বাজিয়ে প্রচন্ড গতিতে মোটরসাইকেল চালানো ও বিভিন্ন সড়কের মোড়ে দাঁড়িয়ে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করা তাদের প্রতিদিনের কর্মকান্ডের অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এসব গ্যাংয়ের ব্যাপারে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ জানায়, যখন যে দলের পাল্লা ভারী থাকে তখন সেই দলের ছেলেরা বড় ভাই। তারাই খেলার মাঠের নিয়ন্ত্রণ, মোটরসাইকেল রেস ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণ করে। এর মধ্যেই যখন আরেক দল নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করে তখনই মারামারি হয়। বড় ভাইদের ছত্রছায়ায়ই এসব কিশোররা বেপরোয়া হয়ে উঠে। যেকোনো রাজনৈতিক মিটিং, মিছিলেও এদের বেশ সক্রিয় দেখা যায়।

সচেতন মহলের মতে, কিশোর অপরাধীদের তৎপরতা বন্ধ করতে হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর ভূমিকার পাশাপাশি অভিভাবকদের আরো বেশী সচেতন হতে হবে। অন্যথায় কিশোর অপরাধী নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...