তল্লা মসজিদের সামনে একাধিক অবৈধ পানির লাইনের সন্ধান

19

নারায়ণগঞ্জের খবর ডেস্ক: ফতুল্লায় বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের তদন্ত কমিটির খোঁড়াখুঁড়িতে বিচ্ছিন্ন হওয়া ওয়াসার ৩৬টি পানির লাইন ছিল অবৈধ।

মসজিদের পূর্ব, উত্তর ও দক্ষিণ পাশে গত সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) থেকে মাটি খুঁড়ে গ্যাসের লাইনে ছয়টি লিকেজ পায় তদন্ত কমিটির সদস্যরা। আজ শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ গর্তগুলো ভরাট করার সময় বিচ্ছিন্ন হওয়া ৩৬টি পানির লাইন কেউ সংযোগ করার জন্য আসেনি।

পরে তিতাস গ্যাসের কর্মকর্তারা খোঁজ করেও পানির লাইন সংযোগ নিতে কাউকে পাননি। তখন তারা এই লাইনগুলো অবৈধ ঘোষণা করে গর্ত ভরাট করে দেন বলে জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ তিতাস গ্যাস অফিসের ম্যানেজার প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম।

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ ওয়াসা অফিসে যোগাযোগ করলে এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ৩৬টি লাইন কাটা হলেও যেহেতু কেউ যোগাযোগ করেননি, সুতরাং এসব লাইন অবৈধ ছিল। তাদের লাইনের কাজগপত্র নেই, তাই তারা কেউ সামনে এসে মুখ খোলেননি।

গত ৪ সেপ্টেম্বর রাতে বায়তুস সালাত জামে মসজিদে এশার নামাজের সময় বিস্ফোরণে ৩৭ জন অগ্নিদগ্ধ হন। এ পর্যন্ত তাদের মধ্যে ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। একজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। যে ৫ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন, তাদের অবস্থাও সংকটাপন্ন। এ ঘটনায় পাঁচটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন...