ফতুল্লায় স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছে না

4
নিজস্ব প্রতিবেদক
জেলার সদর উপজেলার ফতুল্লায় সরকার ঘোষিত লকডাউন না মেনে যথারীতি বসেছে সাপ্তাহিক হাটবাজার। এতে হাজার হাজার মানুষের সমাগম হচ্ছে। সরকার করোনা সংক্রমণ রোধে নিত্য প্রয়োজনীয় কাচা- বাজার,ঔষধের দোকান ও জরুরী সেবামুলক দোকান ছাড়া  দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য, হাটবাজার বন্ধ ঘোষণা করলেও সদর উপজেলার ফতুল্লায় তা মেনে মঙ্গলবার সকাল থেকে ফতুল্লায়  বসেছে সাপ্তাহিক হাট।
মঙ্গলবার(৬এপ্রিল) সকাল থেকে হাট বসলেও বেলা বৃদ্ধির পাশাপাশি বাড়তে থাকে মানুষের  ভিড়। সামাজিক দূরত্ব মানছে না ক্রেতা-বিক্রেতা কেউ। নির্দেশনা উপেক্ষা করে  হাট বসানো এবং জনসমাগম সৃষ্টি হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সচেতন মানুষ।
নদীর তীরে বসেছে সাপ্তাহিক গরু- ছাগলের হাট পাশাপাশি ঢাকা- নারায়নগঞ্জ পুরাতন সড়কের পূর্ব পার্শ্বে ফতুল্লা ডি,আই,টি বসেছে নতুন,পুরাতন কাপড়,রেডিমেট তৈরি পোষাক,জামা কাপড়, হাড়ি,পাতিল সহ নানা দ্রবাদী কেনা বেচার হাট।
প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা না মেনে মঙ্গলবার সকালে ফতুল্লা ডু,আই,টি মাঠে বসেছে সাপ্তাহিক হাট। হাটে হাজারো মানুষের সমাগম হয়। এটি উপজেলার সবচেয়ে বড় হাট হিসেবে পরিচিত। আশেপাশে কয়েক ইউনিয়ন থেকে শুরু করে উপজেলা তথা জেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে লোক সমাগম হয় এই হাটে। যেখানে সরকার করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউন ঘোষণা করেছে; সেখানে প্রশাসনের নাকের ডগায় জমজমাট হাট বসেছে। এতে করে ঝুঁকি বাড়ছে করোনার।
নিউজটি শেয়ার করুন...