রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:২৮ পূর্বাহ্ন

রূপগঞ্জে ধর্ষকরা অধরা,ধর্ষিতার পরিবার আতঙ্কে

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জে রূপগঞ্জে ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর সাইফুল ধর্ষীতার আলামত নষ্ট করার জন্য ধর্ষীতার পরিবারকে বিয়ে পড়ানোর কথা বলে নানান রকম তালবাহানা করে। পরে ধর্ষক ইব্রাহিম ও তার পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের উৎকোচ নিয়ে শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় ৫ দিনে মামলা না নেয়নি। পরে মামলা না নেওয়ায় কাফনের কাপড় পড়ে রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের আশ্রয় চেয়ে ধর্ষিতা ও তার পরিবার। বহু নাটকিয়তার পর শুক্রবার দুপুরে মামলা রুজু হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ।

এ ঘটনা নিয়ে গতকাল শনিবার দেশের বিভিন্ন জাতীয় পত্রপত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদ প্রকাশের পর ধর্ষণের ঘটনার তদন্ত করতে ঘটনাস্থলে যান ’গ’ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মাহিন ফরাজী। শনিবার দুপুরে ’গ’ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মাহিন ফরাজী রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মীর আব্দুল আলীমকে বিষয়টি জানান। এসময় তিনি নিজে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্থানীয় মানুষের সঙ্গে কথা বলে ধর্ষণের ঘটনার সত্যতা পান।

ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষিতা ও তার পরিবারকে খুজে পাওয়া যায়নি। ধর্ষিতা ও তার পরিবারকে ফিরিয়ে আনা ও নিরাপত্তা দেওয়ার ব্যপারে আশ্বাস দেন তিনি।

জানা যায়, এ ঘটনায় মামলা হলেও ধর্ষক কবির হোসেনের ছেলে ইব্রাহিম মিয়াকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ধর্ষক ও তার পরিবারের সদস্যদের নিয়োজিত সন্ত্রাসীদের ভয়ে ধর্ষিতা ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

ধর্ষিতার চাচা অভিযোগ করে জানান, ধর্ষকের পরিবার দম্ভ দেখিয়ে বলে ধর্ষিতা ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে ১০ টি মিথ্যে দিবে বলে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে। এর জের ধরে ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক এনামুল ধর্ষিতার ও তার পরিবারকে খুজে না পাওয়া গেলে ধর্ষিতার ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে উল্টো মামলা দিবে বলে ধর্ষিতার চাচাকে হুমকি দিয়ে আসে।

স্থানয়ী সূত্রে জানা যায়, ধর্ষক ইব্রাহিমের পিতা কবির হোসেন ধর্ষীতার পরিবারকে মেরে ফেলার জন্য সন্ত্রাসী ভাড়া করেন। ওই সন্ত্রাসীরা ও ধর্ষক ইব্রাহিম কিছুক্ষন পর পর ধর্ষীতার বাড়িতে মটর সাইকেল মহড়া দেয় ও প্রকাশ্যে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এমনকি মামলার আসামী ধর্ষক ইব্রাহিম প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ায় এবং তার পিতা কবির হোসেন ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রে সামনেই বসে খোশ গল্প মেতে থাকলে রহস্যজনক কারনে তাদেরকে গ্রেফতার করছেনা ভোলাব ফাঁড়ি পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশের প্রতি জনগনের আস্থা কমে যাচ্ছে। প্রতিনিয়ত মটর সাইকেল মহড়ায় এলাকার সাধারন মানুষের মনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD