রূপগঞ্জ বিএনপিতে আগুন

62

আবদুর রহিম: রূপগঞ্জ বিএনপির রাজনীতিতে নতুন করে আগুন জ্বেলে উঠেছে। কেন্দ্রীয় নেতাদের আগমকে ঘিরে নতুন করে এই উপজেলার রাজনীতিতে উত্তাপ ছড়িয়েছে। স্থানীয় বিএনপির দুই গ্রুপ প্রভাব বিস্তারকে ঘিরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। এ ঘটনায় নাসির উদ্দিনসহ বিএনপির বেশ কিছু নেতা লাঞ্ছিত হয়।

এদিকে, কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে স্থানীয় বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘাতকে ভালো ভাবে গ্রহন করেনি রুপগঞ্জের মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীরা। আর এ ঘটনায় বিব্রত হয়েছে সেজান জুস কারখানা পরিদর্শনে আসা কেন্দ্রীয় নেতারাও। তবে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে স্থানীয় বিএনপির সংঘর্ষের জন্য দায়ি কে, দিপু ভূইঁয়া নাকি নাসির উদ্দিন? এমন প্রশ্ন স্থানীয় বিএনপির মাঠ পর্যয়ের নেতাকর্মীদের।

স্থানীয় বিএনপির একাধিক সূত্র জানায়, বিএনপি নেতা মোস্তাফিজুর রহমান ভূইঁয়া ও নাসির উদ্দিনের মধ্যে প্রভাব বিস্তারকে ঘিরে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। সেই বিরোধের অংশ হিসেবে ১৩ জুলাইয়ের এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

রূপগঞ্জের সেজান জুসের কারখানায় আগ্নিকান্ডে ৫২জন শ্রমিক নিহত হওয়ার পর থেকেই রূপগঞ্জে শোকাবহ পরিবেশ তৈরী হয়। এ ঘটনার পর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন স্তরের প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তারই ধারাবাহিকতায় বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির একটি প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে আসলে স্থানীয় বিএনপির দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। শােকের জায়গায় বিএনপির এই সংঘর্ষকে ঘিরে খোদ বিএনপির মধ্যেই চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

নিউজটি শেয়ার করুন...