সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৭:২১ অপরাহ্ন

নারীদের শ্রদ্ধা করতে পারিনা বলেই আজ সমাজে এত অনাচার: উপ মহাপরিচালক

ফতুল্লা সংবাদদাতা: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি অফিসের উদ্যোগে এনায়েত নগর ইউনিয়নের মধ্য ধর্মগঞ্জ (ঢালিপাড়া) ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে ১০ দিন মেয়াদী অস্ত্রবিহীন গ্রাম ভিত্তিক মৌলিক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার (১৪ অক্টোবর) সকালে ১১৫নং মধ্য ধর্মগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে এ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ঢাকা রেঞ্জ পরিচালক এবং ভারপ্রাপ্ত উপ মহাপরিচালক মুহাম্মদ সাজ্জাদুর রহমান ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, অদৃশ্য একটা জিনিষ সবার মধ্যে অবস্থান করতেছে আর সেটা হলো রুহ বা আত্মা। এই দৃশ্য জিনিষটার ফলে এই যে আমি হাত পাঁ নারাচ্ছি, সব কিছু করতে পারছি আর অদৃশ্য জিনিষটা যদি চলে যায়, তাহলে এটা নিথর একটা দেহ ছাড়া আর কিছুই না। সেই অদৃশ্য জিনিষটাই সবকিছু। এ অদৃশ্য জিনিষটার কোন লিঙ্গান্তর হয়না। ওটার মধ্যে কিন্তু কোন মেল বা ফিমেল (পুরুষ বা মহিলা) লেখা নেই। ওইটাই সমস্ত শক্তির উৎস। তাহলে এ থেকে বুঝা যায় একটা ছেলের মধ্যে যা আছে একটা মেয়ের মধ্যেও ঠিক একই জিনিষটা আছে। যেটা ছেলেদের পরিচালিত করে সেই একই জিনিষ মেয়েদেরও পরিচালিত করে। সুতরাং ছেলে ও মেয়ের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই।

তিনি বলেন, আজকে যদি পুরুষ ও মহিলার মধ্যে কোন পার্থক্য না থেকে থাকে, যদি সেও মানুষ এবং তিনিও মানুষ হন, শুধুমাত্র আকৃতিগত পার্থক্য যেটা আছে সেটা হলো পৃথিবীর সিস্টেম। মানুষ বিয়ে সাদি করে, সংসার ধর্ম করে, বাচ্চা কাচ্চা জন্মগ্রহণ করে, এটা হলো একটা কমন বিষয়। আমরা করতেছি কি ওই মূল সত্যের কাছকাছি না গিয়ে আমরা এ সমস্ত বিষয় নিয়ে নারাচারা করছি, সময় নষ্ট করছি। এ সমস্ত বিষয় নিয়ে আমরা সমাজে অশান্তি সৃষ্টি করছি।

তিনি আনসার ভিডিপির সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজকে দেখ মেয়েরা কোথাও নিরাপদ না। ছেলেরা মেয়েদের দেখলে টিছ কাটবে। কেন কাটবে? আকৃতগত কারনে তিনি মহিলা। সে আমার বোন, কারোর না কারোর বোন। তার শারীরিক অঙ্গপ্রতঙ্গ নিয়ে আমাকে কেন ভাবতে হবে? আমার ভাবার কি আর কোন বিষয় নাই? এটা নিদিষ্ট একটা সময়। ওই নিদিষ্ট সময়ের পিছনে এত সময় দেয়ার দরকার কি? তোমাদের অনেক কিছু করার আছে, অনেক কিছু ভাবার আছে। তোমার যদি এ বোধটা থাকে সে মানুষ, আমার মধ্যে যা আছে, তার মধ্যেও তা আছে, তাহলে তার প্রতি আমার সম্মানবোধ থাকবে। আমি কখনোও তার অঙ্গপ্রতঙ্গকে বাজে দৃষ্টিতে দেখবো না।

তিনি আরও বলেন, আমরা তাদেরকে (নারীদের) শ্রদ্ধা করতে পারিনা বলে আজ সমাজে এত অনাচার, এত কুসংস্কার। আজকে আমাদের এ জায়গাটা ক্লিয়ার না। এ জায়গাটা যদি আমাদের প্রত্যেকেরই ক্লিয়ার হয়ে যায়, তাহলে সমাজ থেকে দেখবা সমস্ত কিছু দূর হয়ে যাবে। দৃষ্টিভঙ্গি চেঞ্জ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা আনসার ভিডিপি কমান্ড্যান্ট মো: মকসূদ রসূল বলেন, আনসার ভিডিপির সবচাইতে গুরুত্ব ট্রেনিংয়ের মধ্যে একটি হলো গ্রাম ভিত্তিক অস্ত্রবিহীন মৌলিক প্রশিক্ষণ। এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমেই মূলত আমরা আনসার ভিডিপি সদস্যদের নির্বাচন করি এবং আমাদের সংগঠনের অংশ হিসেবে গড়ে তুলি।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অজিত কুমার দাস সহ উপজেলা আনসার ভিডিপির প্রশিক্ষক প্রশিক্ষিকাবৃন্দ।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি অফিসের উদ্যোগে ৩২ জন পুরুষ ও ৩২ জন মহিলা প্রশিক্ষণার্থীর অংশগ্রহণে ১০ দিন মেয়াদি গ্রামভিত্তিক অস্ত্রবিহীন ভিডিপি মৌলিক প্রশিক্ষণ ৪ অক্টোবর শুরু হয়। প্রশিক্ষণ কার্যক্রম (প্রথম ধাপ) ১৫ অক্টোবর সমাপ্ত হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD