মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন

পাগলার ভিপি রাজিবের খুনিরা ধরাছোয়ার বাইরে

নিজস্ব প্রতিবেদক
চলতি বছরের ২০ এপ্রিল ফতুল্লার পাগলা জেলেপাড়ায় কুপিয়ে হত্যা করা হয় সরকারী কবি নজরুল কলেজের ছাত্র রাজিব তালুকদার ওরফে ভিপি রাজিবকে। কিন্তু এই হত্যাকান্ডের একদিন পর ২১ এপ্রিল থানায় মামলা হলে পুলিশ একই দিনে মামলার এজাহারভুক্ত আসামী সেলিম ওরফে চাঁদ সেলিম এবং  সোলেমান ওরফে কুট্টি নামক দুই জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
কিন্তু সংঘটিত হওয়া হত্যকান্ডের ৬০ দিন পরেও মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামী শির্ষ মাদক ব্যবসায়ী একাধিক হত্যা সহ বহু সংখ্যক মামলার আসামী মিঠুন এবং হত্যাকান্ডের পরিকল্পনাকারী কবির ওরফে অটো কবির সহ  অপর আসামীদের আজো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
নিহত রাজিবের পরিবারের দাবি, ভিপি রাজিব হত্যাকান্ডের বেশ কয়েকদিন পূর্বে হত্যাকান্ডের বিষয়ে ইঙ্গিত বহন করে ফেসবুকে লিখেছিলো পাগলা রেললাইন বটতলা এলাকার ইমরান কবির ওরফে অটো কবির।চলতি বছরের ৯ এপ্রিল  রাতে একটি মারামারির ঘটনা ঘটে।এ সময় আহত হয় চাঁদ শিকদার সেলিম বাহিনীর সন্ত্রাসী লিটন। এ ঘটনায় লিটন বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে যাদের আসামী করা হয় তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলো সন্ত্রাসী হামলায় নিহত  ভিপি রাজিব। আর সে ঘটনাকে কে কেন্দ্র করে  হামলার প্রতিশোধ নেয়া হবে বলে ফেসবুকে লিখেন সন্ত্রাসী অটো কবির।
এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস,আই সালেকুজ্জামান জানান,মামলাটি প্রথমে অপর এক কর্মকর্তা তদন্ত করেছিলো পরবর্তীতে আমি  মামলাটির তদন্তের দ্বায়িত্ব পেয়েছি  ২৬ দিন পূর্বে।দ্বায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই আমি মামলাটিকে বেশ গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে যাচ্ছি।মামলার তদন্তে বেশ অগ্রগতি হয়েছ  বলে তিনি জানান।
উল্লেখ্য, গত ২০ এপ্রিল দুপুরে পাগলা বাজার থেকে পায়ে হেটে নিজ বাসায় ফেরার পথে পাগলা জেলে পাড়ায় পৌঁছামাত্র পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসী মিঠুন,সানজিদ,কবির,চাদঁ সেলিম,কাউছার, অটো কবির সহ আরো একাধিক সন্ত্রাসী   ভিপি রাজিবকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখম করে।মারাত্নক আহতবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে  একই দিন রাতে হামলায় আহত রাজিব ওরফে ভিপি রাজিব(২৪) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীনবস্থায় মারা যায়।
এ ঘটনায়  ২১ এপ্রিল দুপুরে নিহত ভিপি রাজিবের পিতা আসু মিয়া তালুকদার বাদী হয়ে পাগলা জেলেপাড়ার মিঠুন(৩৭), রাব্বি(২৪), ইয়াসিন(২০),কাউছার (২৭), মিলন(৪০), আলামিন ওরফে কেবলা আলামিন(২৭), সানজিদ(৩৭), চাঁদ শিকদার সেলিম(৩৫),ফয়সাল (২২), সোলেমান ওরফে কুট্টি(৩৭), আ: জলিল(৫০), মানিক ওরফে কুত্তা মানিক(৪০)সহ অজ্ঞাত আরো ১৫/২০জনকে আসামী করে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা(মামলা নং ৬) দায়ের করেন।
নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD