সাধারন মানুষকে করোনা টিকার আওতায় আনতে কাজ শুরু করেছেন নাহিদা বারিক

22
নারায়ণগঞ্জের খবরঃ সাধারন মানুষকে করোনার টিকার আওতান আনতে মাঠ পর্যায় কাজ শুরু করেছেন সদর ইউএনও নাহিদা বারিক। বুধবার নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কল্যানী আদর্শ গ্রাম বস্তিতে উপস্থিত ৪০ বা তদূর্ধ্ব বয়সী ভাসমান জনগোষ্ঠীর ‘সুরক্ষা’ ওয়েবসাইটে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। নিবন্ধন শেষে প্রত্যেককে টিকা কার্ডের একটি প্রিন্টেড কপি প্রদান করা হয় যাতে তারা টিকাকেন্দ্রে এই টিকা কার্ডের কপি দেখিয়ে ভ্যাকসিন গ্রহন করতে পারেন।
নাহিদা বারিক বলেন, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় জনসংখ্যা প্রায় ১৪ লাখ হলেও বাস্তবে আরও বেশি লোক এখানে বাস করে যাদের মধ্যে ভাসমান জনগোষ্ঠী প্রচুর সংখ্যক। উপজেলা প্রশাসন এই অধিক সংখ্যক জনগোষ্ঠীকে কাঙ্খিত সেবা প্রদান করতে বদ্ধপরিকর রয়েছে।
কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন এর নিবন্ধন শেষে টিকা কার্ড পেয়ে বস্তির জনসাধারণ মহান আল্লাহর কাছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করেন এবং সরকারের বিনামূল্যে এই টিকা প্রদানের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান।
এছাড়া উপজেলা প্রশাসনিক ভবনের ‘হেল্প ডেস্ক’ থেকেও ৪০ বা তদূর্ধ্ব বয়সী ভাসমান জনগোষ্ঠীদের এই নিবন্ধন কার্যক্রমটি পরিচালিত হচ্ছে। এর পাশাপাশি প্রতিটি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার থেকেও এই নিবন্ধন কার্যক্রমে সহায়তা করা হচ্ছে।
আসুন আমরা কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিনের নিবন্ধন করি, ভ্যাকসিন গ্রহণ করি এবং নিরাপদ থাকি। সেবা করার সুযোগ দেয়ার জন্য উপজেলা প্রশাসন আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ।
নিউজটি শেয়ার করুন...