বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০২:৪০ অপরাহ্ন

সিটি কর্পোরেশন এলাকায় সেলিম ওসমানের ৫০ হাজার কেজি চাল বিতরন

নারায়ণগঞ্জের খবর: নিজ নির্বাচনী এলাকার আওতাধীন ৭টি ইউনিয়ন এলাকার পর এবার সিটি কর্পোরেশনের ১৭টি এলাকায় করোনার প্রভাবে বেকার হয়ে দিশেহারা খেটে খাওয়া মানুষ গুলো প্রতি সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিলেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান।

মঙ্গলবার ৩১ মার্চ এমপি সেলিম ওসমানের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১৭টি ওয়ার্ডের মোট ৮জন কাউন্সিলরের মাধ্যমে ৯৬০ বস্তায়(৪৮ হাজার কেজি) ১৭টি ওয়ার্ড এলাকায় বিতরনের জন্য পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও কামরুল হাসান মুন্নার মাধ্যমে র‌্যালি বাগান হরিজন সম্প্রদায়ের মানুষদের মাঝে আরো ২ হাজার কেজি চাল বিতরনের জন্য পাঠানো হয়েছে। সব মিলিয়ে মোট ৫০ হাজার কেজি চাল সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বিতরন করা হবে। সেলিম ওসমানের ব্যক্তিগত অর্থায়নে তাঁর নির্বাচনী এলাকায় গত দুই দিনে মোট ১ লাখ ২০ হাজার কেজি চাল বিরতন করা হয়েছে।

যার মধ্যে বন্দর থানা এলাকায় সিটি কর্পোরেশনের ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফয়সাল আহম্মেদ সাগর, ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল প্রধান, ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফজাল হোসেন ও ২৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শামসুজ্জোহার কাছে ৫ হাজার কেজি করে মোট ২০ হাজার কেজি চাল পাঠানো হয়েছে। তাঁরা অন্যান্য কাউন্সিলদের সাথে পরমার্শ করে পুরো ৯টি ওয়ার্ডের অসহায়দের ঘরে ঘরে চাল পৌছে দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন এমপি সেলিম ওসমান।

অপরদিকে শহর এলাকায় ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাসেম শকু, ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফি উদ্দিন আহম্মেদ প্রধান, ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল, ও ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবুর কাছে ৭ হাজার কেজি করে মোট ২৮ হাজার কেজি চাল পাঠানো হয়েছে। বন্দর এলাকার মত শহরেও অন্যান্য কাউন্সিলরদের সাথে নিয়ে ৮টি ওয়ার্ড এলাকায় সেই সকল চাল বিতরন করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

সেই সাথে এমপি সেলিম ওসমানের পক্ষ থেকে কাউন্সিলদের কাছে এসএমএস পাঠিয়ে অনুরোধ করা হয়েছে যাতে করে এলাকার হতদরিদ্র মানুষদের কাছে গিয়ে তাদের প্রত্যেকের ঘরে সেই সকল চাল পৌছে দেওয়া হয় এবং কোন অবস্থায় যাতে চাল বিতরন করতে গিয়ে জনসমাগম না ঘটে সেই দিকে বিশেষ দৃষ্টি রেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য ৩০মার্চ নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের আওতাধীন ৭টি ইউনিয়ন এলাকায় প্রতি ইউনিয়নে ১০ হাজার কেজি করে মোট ৭০ হাজার কেজি চাল বিতরনের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে প্রেরণ করা হয়েছে। দুই দিনে মোট ১ লাখ ২০ কেজি(১২ মেট্টিক টন) চাল বিতরন করা হয়েছে। যা অত্যন্ত নীরবে কাউন্সিলর, চেয়ারম্যান, মেম্বার সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা মানুষের ঘরে ঘরে পৌছে দিয়েছেন। এছাড়াও ৭টি ইউনিয়ন এলাকা, খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতাল, ১০০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল, জেলা প্রশাসক কার্যালয়, জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়, সদর ও বন্দর উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তার কার্যালয়ে মোট ২৪০ পিছ পিপিই পোশাক বিতরন করা হয়েছে।

বিতরনকৃত উক্ত চাল ক্রয় থেকে শুরু করে বিতরনের জন্য প্রতিটি এলাকায় পৌছে দেওয়ার জন্য মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। সেজন্য কামরুল হাসান মুন্নাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসামন।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD