শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৮:১০ পূর্বাহ্ন

হাসিনা মানুষের মাঝে ভয় ঢুকিয়ে দিতে চায়-রিজভী

নারায়ণগঞ্জের খবর
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, খাদিজা নামের একটি মেয়ে ফেসবুকে তার মত প্রকাশ করেছে। সে আজ এক বছর ধরে জেলে বন্দি। শেখ হাসিনা মানুষের মাঝে ভয় ঢুকিয়ে দিতে চায়। সারা বাংলাদেশকে গোরস্থানে পরিনত করেছে শেখ হাসিনা।

রোববার (২৭ আগষ্ট) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পুলিশের গুলিতে গুলিবিদ্ধ ফতুল্লা থানা বিএনপির সভাপতি শহিদুল ইসলাম টিটুকে দেখতে গিয়ে এবং দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, আজ তরুণরা নিজেদের জীবনের মায়াকে তুচ্ছ করে সরকারের বাহিনীর সাথে লড়তে দ্বিধা করে না। টিটুর মত অনেক নেতাকর্মী আছে যারা অন্ধ হয়ে গেছে চোখ নষ্ট হয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, আজ যারা চোখের আলো কেড়ে নিয়েছে এর জন্য যে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে তা তাদের ক্ষমতা থেকে নামাতে উদ্বুদ্ধ করছে। শেখ হাসিনা ভাবে যুবকদের আঘাত করলে হয়ত সকলে ভয় পেয়ে থেমে যাবে। ২৯ তারিখের কর্মসূচি কী গণতান্ত্রিক নয়। যুগযুগ ধরে এ ধরনের কর্মসূচি সারা বিশ্ব করছে। তারা হরতাল করছে, অবরোধ করছে। শেখ হাসিনা নানা ধরনের তাস খেলতে ভালবাসে। কখনও জঙ্গি নাটক কখনও আগুন সন্ত্রাস।

শেখ হাসিনা আজ বিভ্রান্ত। আমাদের কর্মসূচি ছিল এক দফার। শেখ হাসিনার পদত্যাগ আর নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন। সুষ্ঠু ভোটের কথা শুনলে শেখ হাসিনা ও ওবায়দুল কাদেরের শরীরে ১০৩ ডিগ্রি জ্বর উঠে। তাই তার র‍্যাব পুলিশকে বলে সুষ্ঠু নির্বাচনের কথা বললে আঘাত করতে। একদিকে পুলিশ, র‍্যাব ও তার পেটোয়া বাহিনী আরেক দিকে আদালত। এর মধ্যেও আমাদের কর্মীরা দাঁড়িয়ে আছে, জীবন দিচ্ছে।

তিনি বলেন, মানুষ ভোট দিবে আওয়ামী, যুবলীগের গুন্ডারা ভোটটা চুরি করবে না এ আশায় আজ বিএনপি নেতাকর্মীরা জীবন দিচ্ছে। ওবায়দুল কাদের বলে বিএনপির বিরুদ্ধে ভিসানীতি দিতে। আমরা তো ভোট চুরি করিনি। আমেরিকায় এক যুবক স্ট্যাটাস দেয়ায় বাংলাদেশে তার মাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সরকার এতটাই কাপুরুষ। ওবায়দুল কাদের, নিজেকে আয়নার দিকে তাকিয়ে দেখুন।

ফরিদপুরে ছাত্রলীগের এক নেতা দুই হাজার কোটি টাকা পাচার করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাহলে ভিসানীতি কাদের বিরুদ্ধে হবে। আপনারা কারা, কে অধিকার দিয়েছে জনগণকে ভোট দিতে না দেয়ার। মানুষকে গুলি করে হত্যা করবেন, শুধু শেখ পরিবার ক্ষমতায় থাকবে এজন্য কী ত্রিশ লক্ষ মানুষ জীবন দিয়েছে।

এসময় বিএনপির কেন্দ্রীয় ও নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD