২৪জন ডাক্তার আছে, হাসপাতাল নেই-শামীম ওসমান

241

নারায়ণগঞ্জের খবরঃ  নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান বলেছেন,নারায়ণগঞ্জের দুইটা হাসপাতাল আছে। একটা ফতুল্লায় আরেকটি সিদ্ধিরগঞ্জে।  ২৪ জন ডাক্তার দুই হাসপাতালের নামে প্রতি মাসে টাকা নেয় প্রতি মাসে মাসে। বেতন পায়। তবে মজার বিষয় হচ্ছে কোন হাসপাতালই নেই। ২০১৩ সাল থেকে প্রতিমাসে মাসে তারা বেতন তুলে নিচ্ছে। কথা বলতে হবে। আওয়াজ তুলতে হবে। ভবিষ্যতের জন্য আওয়াজ তুলতে হবে।

মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা মিলনায়তনে উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন পরিষদে ফগার মেশিন ও মশক নিধন ঔষধ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, পাপ করে কিছু লোক আর ভোগে সমস্ত জাতি। মশা একটি আতঙ্ক হয়েছে। আর সবাইকে আতঙ্কিত করতে কাজ করছে কিছু লোক। আজকে এডিস মশা এসেছে কাল আরেকটি মশা আসবে। যতক্ষণ না পর্যন্ত তুমি তোমার মনকে স্বচ্ছ না করো।

তিনি বলেন, এডিস মশা দেখতে কেমন? সেটি দেখতে কালো না সাদা দ্যাট ইজ নট এ ফ্যাক্টর। ফ্যাক্টর হচ্ছে তুমি তোমার বাড়িঘর পরিস্কার রাখো, সবাইকে সচেতন রাখো। মশা কামড়াতে পারাবেনা। মশা বিনা কারণে আসে না। এই মশার উদ্ভব আসছে নমরুদের সময়। নমরুদ যখন অনাচার করছিলো দুনিয়াতে। একটা মশা এসে তার নাক দিয়ে ঢুকে গিয়েছিলো। ওই মশার নাম কি ছিলো আমি জানিনা। মশার অত্যাচারে সে তার মাথায় বাড়ি দিতে বলছিলো। মশা দিয়ে আল্লাহ তাকে শিক্ষা দিয়েছিলেন। যখন যে কোন দেশে পাপাচার হয়, এটাই ন্যাচারাল গজব। যে দেশে তিনবছরের বাচ্চা ধর্ষণের শিকার হচ্ছে।

সচেতনা বৃদ্ধি করার ব্যাপারে জোর দিয়ে শামীম ওসমান বলেন, ভেজাল খাওয়ানোর পর ধরা পড়লে জরিমানা হবে কেন, একেবারে সিলগালা করা হবেনা কেন। আসলে ক্ষতি কিন্তু আমরা আমাদের নিজেদেরই করছি। শিশুদের ভালো কিছু শেখান। জোড়াতালি দিয়ে স্বপ্ন পূরণ হবেনা জিডিপি বাড়তে পারে। দেশের কিছু লোক অনেক বড়লোক হয়ে যাবে। যেমন সারা পৃথিবীতে ৭০০ কোটি মানুষের কাছে যে সম্পদ আছে তার সমান আছে মাত্র ১০/১২ জনের হাতে। আমরা সচেতন না হলে লাভ নেই।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ- ৬২ বিজিবির নায়েক সুবেদার কুতুবুল আলম, কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যান এম সাইফুল্লাহ বাদল, ও বক্তাবলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত আলী, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড.আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন আহমেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, গোগনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নওশেদ আলী, ফতুল্লা ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান স্বপন, আলীরটেক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মতি, এনায়েতনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. জাহিদুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মনিরুল হক, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার ফিরোজ মিয়া প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন...