অসহায় মানুষের পাশে আজমেরী ওসমান

39

নারায়ণগঞ্জের খবর: করোনা মোকাবিলায় সরকারী/বেসরকারী সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বন্ধ রয়েছে সকল ধরনের প্রতিষ্ঠান। এমনকি প্রয়োজন ছাড়া কোনরকম বাহিরে থাকতেও রয়েছে নিষেধাজ্ঞা। এমন সময় বিত্তশালী কিংবা মধ্যবিত্তরা জীবীকা নিবার্হ করতে তেমন কোন বাধার সম্মুখিন না হলেও ভোগান্তিতে রয়েছে পথ শিশু, দিন মজুর ও রিকশা চালকরা।

তাই এবার এসব খেটে খাওয়া নিম্নবিত্তদের জন্য সড়কে ঘুরে ঘুরে খাদ্য সামগ্রী দিচ্ছেন প্রয়াত সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসিম ওসমান তনয় আজমেরী ওসমান। শুক্রবার মধ্যরাতে নগরীতে হেটে নিজ হাতে কিছু নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন তিনি। নাসিম ওসমান স্মৃতি দু:স্থ ও জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন এর ব্যানারে আজমেরী ওসমানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় গরীব ও অসহায়দের জন্য এ কর্মসূচী পালন করা হচ্ছে বলে জানা যায়।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আজমেরী ওসমান বলেন, করোনা সংক্রমণ রোধে লকডাউন পুরো শহর। তাই যারা দিন আনে দিন খায় তারা খ্বু কষ্টে জীবন যাপন করছে। আমরা যারা সমাজে কিছুটা হলেও অর্থবিত্ত আছি দেখবেন তাদের কিন্তু অনেকেরই বাসায় খাদ্য মজুদ আছে। তবে পথশিশু, দিনমজুর, রিকশা চালকরা কিন্তু ভালো নেই। তারা সকালে খেলে দুপুরে কি খাবে এর কোন নিশ্চয়তা নেই। এমন সময় সকলেরই এগিয়ে আসা প্রয়োজন। সে কথা মাথায় রেখে আমি যতটুকু পারছি খাদ্য সামগ্রী দিয়ে সহযগীতা করার চেষ্টা করছি। পাশাপাশি সকল বিত্তবানদের সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার উদ্বার্ত আহবান করছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, নাসিম ওসমান স্মৃতি দু:স্থ ও জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন এর সভাপতি তরিকুল ইসলাম লিমন। প্রতিটি খাদ্য সামগ্রী প্যাকেটে রয়েছে চাল, ডাল, আলু, লবন, স্যালাইন, সাবান ও মাস্ক।

উল্লেখ্য, এরআগে করোনা সংত্রমন রোধে সাধারণ মানুষের জন্য বিভিন্ন স্থানে হাত ধোয়ার বিশেষ ব্যবস্থা করেছেন তিনি। গত ২৪ মার্চ (মঙ্গলবার) রাতে খানপুর হাসপাতাল সংলগ্ন সড়কে ১২শত লিটারের একটি পানির ট্যাংক স্থাপন করে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেন। যা শহরের চাষাড়া, আইইটি স্কুল, বিসিক শিল্প নগরী, গাবতলী সহ বিভিন্নস্থানেও চলমান রয়েছে। এছাড়াও একই ব্যানারে তিনি বিভিন্ন সময় গরীব ও দুস্থদের মাঝে সহযোগীতা করতে দেখা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন...