শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৪১ অপরাহ্ন

কূটনৈতিক প্রটোকল অনুযায়ী রায়হানকে সাহায্য করবে সরকার

ডেস্ক নিউজ: কাতারভিত্তিক গণমাধ‌্যম আলজাজিরায় সাক্ষাৎকার দেওয়ার পর মালয়েশিয়ায় গ্রেপ্তার রায়হান কবিরকে কূটনৈতিক প্রটোকল অনুযায়ী সাহায্য করবে সরকার। বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে দেশটির মনোভাব জানার পর এই বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, এরই মধ্যে সোমবার (২৭  জুলাই) ওই দেশের কারাগারে আটক রায়হান কবিরের সঙ্গে বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা দেখা করেছেন।  কিন্তু তাদের মধ্যে কী বিষয়ে কথা হয়েছে, তা জানা যায়নি।

তবে, দূতাবাস সামগ্রিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছে বলে জানা গেছে।সূত্র আরও জানায়, মালয়েশিয়ার সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে দূতাবাস যোগাযোগ করবে।  দূতাবাসের মাধ্যমে দেশটির প্রচলিত আইনের প্রতি সমর্থন রেখে সরকার এই বিষয়ে নিজেদের বক্তব‌্য জানাতে পারে।  এ বিষয়ে এখনো কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলে জানা গেছে। ঈদের পর করোনা পরিস্থিতিতে প্রবাসী শ্রমিকদের ফেরত আসা ও প্রণোদনার অর্থবণ্টন ও অন্যান্য বিষয়ে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে নিয়ে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা হতে পারে। ওই সভায় এই বিষয়ে আলোচনা সাপেক্ষে পরবর্তী করণীয় ঠিক করবে সরকার।

এদিকে, কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, রায়হান কবিরের সঙ্গে সোমবার (২৭ জুলাই) তার আইনজীবী সুমিতা শান্তিনি কিষনা ও সেলভারাজ চিন্নিয়াহ দেখা করতে পারেননি। নির্ধারিত সময় অনুযায়ী এদিন দুপুরে তারা মালয়েশিয়ান ইমিগ্রেশনে যান।  কিন্তু ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ  পরবর্তী সময়ে তারিখ জানানোর কথা বলে ফিরিয়ে দেয়।  সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, মালয়েশিয়া আমাদের অন্যতম শ্রমবাজার।  তাদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক অনেক বিষয় রয়েছে।  এসব বিষয় বিবেচনায় যেকোনো কর্মীর স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে কাজ করবে সরকার।  রায়হান কবির বাংলাদেশের নাগরিক।  তাই তাকে অবশ্যই সরকার সাহায্য করবে।

এরই মধ্যে দূতাবাসের পক্ষ থেকে যোগাযোগও করা হচ্ছে।’পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এ ঘটনায় আমাদের জনশক্তি রপ্তানি ও কূটনৈতিক সম্পর্কে যেন কোনো প্রভাব না পড়ে, সে দিকেও লক্ষ রাখবো আমরা।’প্রসঙ্গত, মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অভিবাসীদের প্রতি দেশটির আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক চলতি লকডাউনে বৈষম্যমূলক ও বর্ণবাদী আচরণ করা হয়েছে বলে ‘‘লকড আপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’’ শিরোনামে ২৫ মিনিটের একটি ডকুমেন্টারি কয়েক সপ্তাহ আগে আল-জাজিরা টেলিভিশনে প্রচারিত হয়। এর এক পর্বে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে রেড জোনে অভিযান চালানোর সময় মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে ধরা হয়। ওই পর্বে সাক্ষাৎকার দেওয়ায় রায়হান কবিরের ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করে মালয়েশিয়া।  পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও জারি করে।এরপর গত ২৪ জুলাই বিকেলে তাকে গ্রেপ্তার করে স্থানীয় নিরাপত্তা বাহিনী। ২৫ জুলাই মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমির হামজা জয়নুদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, রায়হান কবিরকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে ইমিগ্রেশন বিভাগ। তিনি আরও জানান, ডকুমেন্টেশন ও টিকিট কেনার প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে অভিবাসন ডিটেনশন ডিপোতে রাখা হবে।  তাকে দেশে ফেরাতে দুই থেকে তিন সপ্তাহ সময় লাগতে পারে বলেও তিনি মন্তব‌্য করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

    © All rights reserved © 2023
    Design & Developed BY M Host BD