পুরোদস্তুর নাপিত বনে গেলেন শচীন টেন্ডুলকার

28

নারায়ণগঞ্জের খবর: ব্যাট হাতে বোলারদের উপর ছড়ি ঘুরানো ভারতীয় ‘ক্রিকেট ঈশ্বর’ শচীন টেন্ডুলকার এবার বনে গেলেন পুরোদস্তুর নাপিত। করোনাভাইরাসের লকডাউনের কারণে কার্যত সবাই এখন গৃহবন্দি। এই অবস্থায় সন্তান অর্জুন টেন্ডুলকারের অবাধ্য চুলগুলোকে শাসন করতে নাপিতের ভূমিকা নিলেন শচীন। আর এই কাজে তাকে সহায়তা করেছেন তাঁর মেয়ে, অর্জুনের বড় বোন সারা টেন্ডুলকার।

অর্জুনের চুল কেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেই ছবি পোস্ট করে শচীন জানিয়েছেন, বাবা হলে নাকি সব করা লাগে। এই সময় মেয়ে সারাকেও ধন্যবাদ দেন শচীন। কারণ, সহকারী নাপিত হিসেবে তাকে যোগ্য সঙ্গই দিয়েছেন সারা।

লকডাউনের কারণে দুই মাসের বেশি সময় ধরে পরিবারের সঙ্গে ক্রীড়া তারকারা। এই সময়কে উপভোগ করার জন্য পরিবারে বিভিন্ন ধরনের কাজ করছেন তারা। নতুন নতুন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হচ্ছেন। শচীন যেমন সপ্তাহ দুয়েক আগে রান্নার কাজে মেয়ে সারার সঙ্গে হাত লাগিয়েছেন। বানিয়েছেন বিটপালং কাবাব।

আর এবার নাপিত। অর্জুনের চুল কেটে দেওয়ার ছবি প্রকাশ করে শচীন সেখানে লিখেছেন, ‘একজন বাবা হিসেবে আপনার সবই করতে হবে। সেটা হোক বাচ্চাদের সঙ্গে খেলা, জিম করা কিংবা মাথার চুল কেটে দেওয়া। যাই হোক, তোমার চুলের স্টাইলটা কিন্তু সুন্দর হয়েছে অর্জুন। আমার সেলুন সহকারী সারাকে বিশেষ ধন্যবাদ।’

নিউজটি শেয়ার করুন...