ফতুল্লায় ডাকাতির মালামালসহ ২ ডাকাত গ্রেফতার

22
নিজস্ব প্রতিবেদক
 ফতুল্লার দাপায় নৈশ প্রহরীকে হাত- পা বেধে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে নির্মাণাধীন ভবনের নির্মান সামগ্রী লুট করে নেয়ার ঘটনায় দুই ডাকাত কে গ্রেফতার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।এ সময় গ্রেফতারকৃতদের নিকট থেকে লুন্ঠনকৃত রড উদ্ধার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতরা হলো থানার আলীগঞ্জ এলাকার রহিম মিয়ার পুত্র রুবেল (২৫), ও মাসদাইর এলাকার শাহাদাত মিয়ার পুত্র আলম(৩৫)।এ সময় গ্রেফতারকৃতদের নিকট থেকে লুন্ঠনকৃত নির্মান সামগ্রী উদ্বার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় নির্মানধীন ভবনের মালিক মাজহারুল ইসলাম মামুন বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা (নং ২২) দায়ের করে।
এর আগে  শুক্রবার(১১সেপ্টেম্বর) দিবা গতরাত  রাত ৩ টায় ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুর সাহারা সিটি এলাকায়  ইব্রাহিম,বাপ্পি,আল- আমিন,জাহিদসহ গ্রেফতারকৃতরা একটি ট্রাক করে এসে একটি নির্মানধীন ভবনের নৈশ প্রহরীর হাত- পা বেধে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে নির্মাণাধীন ভবনের ৪ টন রড ট্রাকে করে লুট করে নিয়ে যায়।
ঘটনার বিবরনীতে আহত নৈশপ্রহরী  কামাল হোসেন জানান,সাহারা সিটির ভিতরে  মাজারুল ইসলাম মামুনের বাড়ী নির্মানের কাজ চলছে।  ছাদ ঢালাই দেওয়ার জন্য রড এনে রেখেছিলো।শুক্রবার দিবাগত  রাত তিনটার সময় একটি ট্রাক এসে রাস্তায় থামে এবং ট্রাক থেকে নেমে দুইজন লোক তার সামনে আসে।কিছু বুঝে উঠার আগেই লোক দুটি তার  গলায় ছুরি ধরে এবং তাকে নির্জন স্থানে নিয়ে গামছা হাত-পা.মুখ বেধে ফেলে। এতে তিনি বাধা দিতে চাইলে গলায় ও হাতে ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে।  পরে আরো ৪/৫জন ডাকাত   ট্রাক  নিয়ে এসে বাড়ী নির্মান করার জন্য নিয়ে আসা ৪ টন রড লুট করে নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন জানা,শুক্রবার দিবাগত রাতে  ফতুল্লা মডেল থানাধীন দাপা এলাকায় ছয়জন ডাকাত  নির্মানাধীন একটি ভবনের নৈশপ্রহরীকে বেধে গলায়ও হাতে ছুরিকাঘাত করে দুই লক্ষটাকার রড লুন্ঠন করে ট্রাকে করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা( নং ২২)  রুজু হয়েছে । লুন্ঠনকৃত  রড উদ্ধার সহ দুইজন ডাকাত গ্রেফতার করা হয়েছে এবং  জড়িত পলাতক  অন্যান্য ডাকাতদের ইতিমধ্যেই চিন্থিত সহ তাদের গ্রেফতার করার চেস্ট করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।
নিউজটি শেয়ার করুন...