সোনারগাঁয়ে সাবেক চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে আহত

16

সোনারগাঁ প্রতিনিধি : সরকারী রাস্তা সংস্কার কাজে সন্ত্রাসী মোস্তফা বাহিনীর দাবিকৃত ৩লাখ টাকা চাঁদা না দেয়ায় পিরোজপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল হক ভূঁইয়া (৬০) ও তার ছেলে সুমন ভূঁইয়াসহ (৩০) ৪জনকে ধারালো চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক ভাবে আহত করেছে। শনিবার বেলা সোয়া ২টার দিকে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের দুধঘাটা এলাকায় সিএনজি ¯ট্যান্ডে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

মারাত্মক আহত সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল হক ভূঁইয়া ও তার ছেলে সুমন ভূঁইয়াকে প্রথমে সোনারগাঁও স্ব্যাস্থ কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় আহতদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল হক ভূঁইয়া জানান, দুধঘাটা গ্রামের সন্ত্রাসী মোস্তফা ও তার ছেলে রোমান এবং তাজুলের ছেলে আবদুল্লাহ দুধঘাটা এলাকার সরকারী রাস্তা কাজে বাধা দিয়ে ৩লাখ টাকা চাঁদা হিসেবে দাবি করে। তাদের দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় মোস্তফা ক্ষিপ্ত হয়ে ও তার ছেলে রোমান এবং তাজুলের ছেলে আবদুল্লাহ, মজিবর ও তার ছেলে বাবুসহ ৮-১০ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী ধারালো চাপাতি দিয়ে সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল হক ভূঁইয়াকে এলোপাতারীভাবে মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মারাত্মক রক্তাক্ত জখম করে। এ সময় আহত বাবাকে সুমন ভূঁইয়া, রাসেল ভূঁইয়া বাঁচাতে গেলে তাদেরকেও ধারালো চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত জখম করে।

এদিকে সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল হক ভূঁইয়ার উপর হামলার ঘটনা চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে, এলাকাবাসী মিলে সন্ত্রাসী মোস্তফা বাহিনীকে ধাওয়া করলে, তারা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে।
এব্যাপারে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান মনির বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...